ডিজিটাল উদ্যোক্তা পরিচয়টাই মূল পরিচয় নয়।প্রয়োজন দক্ষতা,কোয়ালিটি,পরিচিতি,মার্কেটিং এবং সেল।

ডিজিটাল উদ্যোক্তা পরিচয়টাই মূল পরিচয় নয়।প্রয়োজন দক্ষতা,কোয়ালিটি,পরিচিতি,মার্কেটিং এবং সেল।

Business News & Event Tech ক্যারিয়ার নারী উদ্যোক্তা নিউজ ও ইভেন্ট ব্যবসায়িক পরামর্শ

আমাদের চারপাশের মানুষের মুখের একটি প্রচলিত কথা আছে তা হলো “ব্যবসা শুরু করতে অনেক টাকা লাগে টাকা ছাড়া ব্যবসা হয় না”। হ্যাঁ, সত্যি টাকা ছাড়া ব্যবসা হয় না। কিন্তু আমি যদি নাই  জানি আমি কিসের ব্যবসা করবো? কি ভাবে ব্যবসা করবো?? কোথায় ব্যবসা করবো?? আমার কাস্টমার কারা?? ব্যবসা করলে শুধু টাকা না ব্যবসা সম্পর্কে এ টু জেট ক্লিয়ার ধারণা থাকতে হবে তাহলেই ব্যবসায় সফলতা দেখতে পাওয়া যাবে। তবে আমি বলি ডিজিটাল উদ্যোক্তা হবে খুব বেশি টাকা লাগেনা।লাগে ধৈর্য ধরে সময়কে সঠিক ভাবে কাজে লাগানোর কৌশল।আমাদের ব্যবসা সম্পর্কে দক্ষতা নেই,ব্যবসা সম্পর্কে ধারনা নেই,কিন্তু মুখে বলে ফেলি টাকা হলেই ব্যবসা হয়।

একজন ডিজিটাল উদ্যোক্তা হিসাবে টাকা ছাড়াও ঘরে বসে ব্যবসা শুরু করার সুযোগ আছে।  আমরা যদি একটু ধৈর্য নিয়ে বুঝে শুনে  ব্যবসা শুরু করি তাহলে টাকা ছাড়াও  ব্যবসা শুরু করা যায়।তা আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি।

সবাই চাইলেই ডিজিটাল মার্কেটিং এর জন্য একটি অংশ সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকের গ্রুপ,পেজ এবং পার্সোনাল প্রোফাইল বিনা পয়সায় ব্যবহার করে আমরা আমাদের বিভিন্ন বিষয়ে পার্সোনাল ব্র্যান্ডিং এর পাশাপাশি নিজের পণ্যের একটি পরিচিতি তৈরি করতে পারি এবং একটি নেটওয়ার্ক তৈরি করতে হবে খুব সহজেই। সময়কে কাজে লাগিয়ে শুধু সময় ইনবেস্ট করে টাকা হয়।

দক্ষতার জন্য আমরা ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপ, পেইজ, ইউটিউব, গুগল, বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল, ব্লগ সাইট  সহ বিভিন্ন খোঁজ করতে পারি। এসব অনুসরণ করে দক্ষতা,পরিচিত এবং সেল সব কিছুই সম্ভব সম্পূর্ন বিনা পয়সায়। আমরা যদি লক্ষ টাকার পণ্য কিনে বা উৎপাদন দিয়ে শুরু করি এবং আমরা যদি চিন্তা করি পণ্য কোথায় রাখবো, পণ্য কোথায় বিক্রি করবো,কিভাবে বিক্রি করবো এবং আমার টার্গেট কাষ্টমার কারা এসব নিয়ে কাজ করতে করতে এবং কাষ্টমার খুজে বের করতে আমাদের এক বছর বা আরও বেশি সময় চলে যাবে ও অনেক বাড়তি টাকা খরচও হয়ে যাবে। আরও মজার বিষয় হলো একজন ক্ষুদ্র দেশীয় পণ্যর ই-কমার্স , ডিজিটাল উদ্যোক্তা হিসাবে বাংলাদেশের যে কোন জেলা শহর বা উপজেলা শহরের ঘরে বসে সম্পূর্ন বিনা পয়সায় ফেসবুকে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবো। ফেসবুকে বিনা পয়সায় পণ্য বিক্রি করলে আমার দোকান বা অফিস ভাড়া লাগবে না আবার মার্কেটিং খরচও লাগবে না।

আমি কি করতে চাই সে বিষয়ে প্রচুর পড়াশোনার মাধ্যমে দক্ষতা তৈরির পাশাপাশি পার্সোনাল ব্রেন্ডিং ,পরিচিতি বাড়িয়ে এবং নিজের উদ্যোগ ও পণ্য সম্পর্কে নিজেকে জানতে হবে এবং জানাতে হবে ও তুলে ধরতে হবে।তাই একজন উদ্যোক্তা হিসাবে নিজেকে তুলে ধরতে হলে প্রতিটি জায়গায় নিজের কোয়ালিটি সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে এবং উদ্যোক্তা হলেই সেল হবে এটা চিন্তা করা বোকামি।তাই আগেও বলেছি এখনও বলছি উদ্যোক্তা কোন সহজ বিষয় না এর জন্য নিদিষ্ট একটি সময় হাতে রাখতে হবে,এর চাইতে বিনা পয়সার সহজ বিষয় আর কি হতে পারে।

আপনি আপনার সময়কে সঠিক কাজে লাগান সময়ই  আপনাকে সঠিক কাজটি খোঁজে দেবে।

ভুলভ্রান্তি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন সবাই..

সবার জন্য রইলো শুভ কামনা..

মামুনূর রশিদ

নিউজ সমাহার

newssamahar@gmail.com

Leave a Reply