অভিজ্ঞতা ছাড়াই মোবাইল দিয়ে ঘরে বসে বাংলাদেশী সাইট থেকে আয় করুন!

Article নিউজ ও ইভেন্ট

ঘরে বসে কে না আয় করতে চায়, কিন্তু সেই উপায় কয়জনের বা মাথায় আসে।

কেউ হয়তো চিন্তা করে করেই সময় নষ্ট করে ফেলছেন যে কিভাবে ঘরে বসে আয় করা যায়। আর দেশে বাড়ছে বেকার সমস্যা। চাকরি নেই বলে হা হুতাশ করছে চাকরি প্রত্যাশী অনেকে। কিন্তু আজকাল ঘরে বসে আয় করা আর নতুন কিছু নয়। আমরা অনেকেই এই ধারণার সাথে পরিচিত। কেউ নিজের হাতে তৈরি কিছু বিক্রি করে, কেউ রান্না খাবার বা ক্যাটারিং ব্যবসা করে, কেউবা বুটিক কাজ করে অর্থ উর্পাজন করেন। এসব ছাড়াও অর্থ উপার্জনের আরো মাধ্যম আছে যার জন্য ঘরের বাহিরে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

এখনকার অন্যতম জনপ্রিয় আয়ের মাধ্যম হল অনলাইন। এই মাধ্যমটি  বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বিশেষ করে গৃহিণী এবং তরুন-তরুণীদের মাঝে যারা ঘরের কাজ বা পড়াশোনার পাশাপাশি বাড়তি অর্থ উর্পাজন করতে আগ্রহী।

অনলাইনে অর্থ উর্পাজন করা তেমন কঠিন কাজ নয়। যদি আপনি হন একজন পরিশ্রমী এবং বুদ্ধিমান মানুষ যার কম্পিউটার, ল্যাপটব বা স্মার্টফোন সম্পর্কে মৌলিক ধারণা আছে আর সাথে ইন্টারনেট সংযোগ তবে আপনিও পারবেন সহজেই অনলাইনে  প্রতিমাসে বেশ ভালো পরিমাণ অর্থ  উর্পাজন করতে।

আমার আজকের আলোচনায় থাকছে ঘরে বসে অনলাইনে আয় করার  সহজ উপায় এবং প্রয়োজনীয় পরামর্শ। এখান থেকেই শুরু করে হয়ত আপনি মাসে ২০-৩০ হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আসুন দেখে নেওয়া যাক, এই আর্টিকেলে আমি যেসব বিষয়ে আলোচনা করব-

  • রেফারেলস মার্কেটিং নিয়ে প্রাথমিক ধারণা
  • SaMaHar.Net রেফারেলস প্রোগ্রামের পরিচিতি এবং সুবিধাসমূহ
  • ৩টি সহজ ধাপে SaMaHaR.Net রেফারেলস প্রোগ্রাম থেকে আয় করার বিস্তারিত
  • কিভাবে আগাবেন – রেফারেলস মার্কেটিং এর গাইডলাইন ও টিপস
  • রেফারেলস প্রোগ্রাম নিয়ে কিছু কমন জিজ্ঞাসা ও সেগুলোর উত্তর

Referrals Marketing আসলে কী?

কোনো প্রোডাক্ট/সার্ভিস যদি আপনি আপনার পরিচিতদের কাছে প্রোমোট করেন, আর তারা আপনার কথা শুনে যদি সেই প্রোডাক্ট/সার্ভিস ক্রয় করে; তাহলে আপনি সেই প্রোডাক্ট/সার্ভিসের ক্রয়মূল্যের একটা নির্ধারিত অংশ কমিশন পাবেন। এটিই সহজ ভাষায় রেফারেলস মার্কেটিং! যত বেশি মানুষ আপনার কথা শুনে সেই প্রোডাক্ট/সার্ভিস ক্রয় করবে, আপনি তত বেশি কমিশন লাভ করবেন!

রেফারেলস মার্কেটিং এ তিনটি পক্ষ কাজ করে-

  • মার্চেন্ট –মার্চেন্ট মূলত পণ্য/সেবা তৈরি ও বিক্রি করে থাকে
  • কাস্টমার –তারা মার্চেন্টের সেই পণ্য/সেবা ক্রয় করে থাকে
  • রেফারেলস – তারা মার্চেন্টের তৈরিকৃত পণ্য/সেবা কাস্টমারের কাছে প্রোমোট করে এবং কাস্টমার সেই পণ্য/সেবা কিনলে রেফারেলসরা মার্চেন্টদের থেকে কিছু কমিশন লাভ করে

SaMaHaR.Net এ আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন পণ্য বা সেবা সমূহ  সেল করি। আমাদের পাশাপাশি আমাদের সদস্যরা পণ্য বা সেবা সমূহ সেল  করে থাকেন এবং সেগুলো পরিচালনার দায়িত্বে থাকি আমরা Team samahar.net . কাজেই টীম- সমাহার ডট নেট এখানে মার্চেন্ট, আর পণ্য বা সেবা সমূহ  ক্রয় করে যেসব সদস্যরা তারা কাস্টোমার। আর আমাদের রেফারেলসরা এই পণ্য বা সেবা সমূহ মানুষের কাছে পৌঁছে দেন যাতে বেশি বেশি মানুষ আমাদের পণ্য বা সেবা সম্পর্কে জানতে পারেন। আর রেফারেলসদের প্রোমোট করা পণ্য বা সেবা সমূহ  যখন কেউ ক্রয় করেন, তখন প্রতিটি পণ্য বা সেবা বিক্রয়মূল্য থেকে ০-১২% পর্যন্ত কমিশন আমরা রেফারেলসদের দিয়ে থাকি! অর্থাৎ একজন কাস্টমার কোনো রেফারেলসের মাধ্যমে ১০০০ টাকার একটি পণ্য বা সেবা কিনলে সেই রেফারেলস পাবেন ০-১২০ টাকা! আর রেফারেলসকৃত লিংক ভিজিটর থেকেও পাবে ইনকাম পণ্য বা সেবা ক্রয় করুক বা না করুক।

 

এবার জানাবো SaMaHaR.Net এর রেফারেলস মার্কেটিং প্রোগ্রাম কেনো এতো স্পেশাল..!

  • ১২% রেফারেলস কমিশনঃবাংলাদেশে সবচেয়ে পপুলার রেফারেলস প্রোগ্রামের অন্যতম হচ্ছে অ্যামাজনের রেফারেলস প্রোগ্রাম। অ্যামাজনের প্রোগ্রামে রেফারেলসরা 0% থেকে শুরু করে ১০% পর্যন্ত কমিশন পায়। দেশি বিভিন্ন ই-কমার্স ব্যবসায়ীরাও প্রতিটি প্রোডাক্টের 0-৮% কমিশন দিয়ে থাকে রেফারেলসদের। সেখানে SaMaHaR.Net তে রেফারেলসরা পাচ্ছেন ০-১২% কমিশন!
  • ৩০ দিনের কুকিপলিসিঃবুঝিয়ে বলছি- কোনো ভিজিটর আপনার দেয়া রেফারেল লিঙ্কে ক্লিক করে SaMaHaR.Net তে প্রবেশ করলে আমরা তার ব্রাউজারে একটি Cookie সেভ করে রাখি ৩০ দিনের জন্য। ৩০ দিনের মধ্যে সে কোনো পণ্য বা সেবা  কিনলে আমরা বুঝবো সেটি আপনার রেফারেন্সেই কেনা হয়েছে। অর্থাৎ আপনার লিঙ্কে ক্লিক করে SaMaHaR.Net তে আসার ৩০ দিন পরেও যদি কেউ কোনো পণ্য বা সেবা কিনে, তাহলে আপনি কমিশন পাবেন। যেখানে অ্যামাজনের ক্ষেত্রে এই সময়কাল মাত্র ১ দিন (২৪ ঘণ্টা!)।
  • সাপ্তাহিক কমিশনঃঅর্থাৎ প্রতি মাসে ৪ বার আমরা কমিশন প্রদান করে থাকি!
  • সবচেয়ে বড় কথা– কোয়ালিটি অনুযায়ী আমাদের পণ্য বা সেবা সমূহ  বাংলাদেশের সবচেয়ে সেরা (এটা তো সবাই বলে :p )! আমাদের নিজস্ব পণ্য নেই কিন্তু সেবা নিজস্ব তবে আমরা প্রচন্ড কোয়ালিটি মেইনটেইন করেই পণ্য বা সেবা সমূহ সেল করি এবং করছি!

এছাড়া অন্যান্য আরও অনেক সুবিধা রয়েছে, সেগুলো দেখতে এখানে ক্লিক করুন!

তো আসলে কিভাবে এটি কাজ করে? কিভাবে বুঝবো কোন রেফারেলসের রেফারেন্সে Sale হলো? রেফারেলস হিসেবে আমার করণীয় কি আসলে ??

ধাপ  –  আমাদের রেফারেলস প্রোগ্রামে রেফারেলস হিসেবে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। করার পর আপনার একটি রেফারেন্স নম্বর থাকবে এবং সেই নম্বর দিয়ে বিভিন্ন রকম রেফারেল লিঙ্ক তৈরি করে দেয়া হবে। উদাহরন- https://samahar.net/?ref=3 এখানে রেফারেন্স নম্বর হচ্ছে ৩। কাজেই কেউ এই লিঙ্কে ক্লিক করে আমাদের ওয়েবসাইটে গেলে আমরা বুঝে যাবো ৩ নম্বর রেফারেলস মার্কেটারের রেফারেন্সেই ভিজিটর ওয়েবসাইট ভিজিট করছেন। এই রেফারেল লিঙ্ক তথা CREATIVES গুলো টেক্সট, লিঙ্ক, ইমেজ ইত্যাদি বিভিন্ন ফরম্যাটের হতে পারে।

রেফারেলস হিসেবে রেজিস্টার করতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

ধাপ  –  রেফারেল লিংক তো পাওয়া গেল; এবার তা মানুষের কাছে প্রচার করতে হবে। সাধারণত বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠিত রেফারেলস মার্কেটারদের নিজস্ব অডিয়েন্স/ফ্যানবেইজ/ফলোয়ার থাকে। কোনো কোনো মার্কেটার হয়ত ব্লগিং করেন, কেউ হয়ত ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও পাবলিশ করেন, কেউ কেউ ফেসবুক বা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখালিখি করেন। প্রতিটি রেফারেলস মার্কেটারকেই কোনো না কোনো ভাবে এই অডিয়েন্স তৈরি করে নিতে হবে আস্তে আস্তে; বা মানুষের কাছে পৌঁছানোর কোনো না কোনো উপায় বের করতে হবে। এরপর সেই অডিয়েন্সের কাছে মার্চেন্টের প্রোডাক্ট (সমাহার ডট নেট এর পণ্য ও সেবা) প্রচার করতে হবে রেফারেল লিঙ্কের মাধ্যমে।

অলরেডি নিজের ফলোয়ার বা অডিয়েন্স না থাকলে যে রেফারেলস মার্কেটিং করা যাবে না- এমনটি ভাববেন না। কোনো মার্কেটারই এই অডিয়েন্স রাতারাতি তৈরি করে ফেলতে পারেন না। সময়, শ্রম ও পরিকল্পনার প্রয়োজন রয়েছে। কাজেই অডিয়েন্স না থাকলে, বা নিজের ব্লগ বানানোর সাধ্য না থাকলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন গ্রুপে, পেইজে, টাইমলাইনে, ইউটিউব চ্যানেলে বা অন্য কারো ব্লগেও মার্কেটিং শুরু করতে পারেন।

ধাপ  – এবার ঘুমিয়ে পড়ুন! Passive Income বলতে যা বুঝায় আরকি- ঘুমের মধ্যেও ইনকাম করা! অডিয়েন্স তৈরি করা আর তাদের মাঝে সমাহার ডট নেট এর পণ্য ও সেবা সমূহ প্রোমোট করার পর আপনার প্রগ্রেস এবং ইনকাম পর্যবেক্ষণ করুন। সমাহার ডট নেটের Referrals থেকে দেখা যাবে ঠিক কতজন মানুষ আপনার রেফারেন্সে ওয়েবসাইট ভিজিট করেছে, কতজন মানুষ কত টাকার পণ্য বা সেবা কিনেছে, তা থেকে কত টাকা আপনি কমিশন পেলেন!

আরও বেশি অডিয়েন্স বাড়ানোর দিকে মনযোগ দিন। আর তার জন্য আপনার চ্যানেল বা মিডিয়াগুলোয় আরও বেশি বেশি কনটেন্ট শেয়ার করুন এবং সেই কনটেন্টের মাঝেই সমাহার ডট নেট এর পণ্য বা সেবা সমূহ প্রোমোট করুন। কনটেন্ট অনেক রকমের হতে পারে, নিচে এ নিয়ে কিছু আইডিয়া দেয়া হয়েছে।

রেফারেলস মার্কেটিং টিপস- কোথায় এবং কিভাবে প্রোমোট করবেন!

১। ফেসবুক বা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় – একটি পেইজ খুলে ফেলতে পারেন। সেখানে নিয়মিতভাবে লিখালিখি করতে পারেন। পেইড এডভার্টাইজমেন্টও করতে পারেন সম্ভব হলে। নিজের টাইমলাইনেও লিখতে পারেন। বিভিন্ন পাবলিক গ্রুপেও লিখতে পারেন, প্রোমোট করতে পারেন। লিখতে পারেন বা ভিডিও আপলোড করতে পারেন, বা ছবি আপলোড করতে পারেন!

২। ইউটিউব – একটি চ্যানেল খুলে সেখানে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করুন। একটা নির্দিষ্ট ইনডাস্ট্রিতে থেকে বিভিন্ন বিষয়ের উপর ভিডিও তৈরি করুন, এমন ভিডিও তৈরি করুন যাতে মানুষের উপকারে আসে। ভিডিওতে বা ভিডিওর ডেসক্রিপশনে সমাহার ডট নেটের পণ্য বা সেবা  প্রোমোট করতে পারেন।

৩। পার্সোনাল ব্লগ/ওয়েবসাইট – সম্ভব হলে সোশ্যাল মিডিয়ার পাশাপাশি নিজের একটা ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করে সেখানেও লিখালিখি করতে পারেন। বিভিন্ন বিষয়ের উপর আর্টিকেল পাবলিশ করুন এবং সেখানে আমার বিজনেস ২৪ এর পণ্য বা সেবা প্রোমোট করুন। দরকারি বিভিন্ন বিষয়ের উপর আর্টিকেল লিখুন, যেগুলো পড়ে মানুষের কাজে লাগে।

৪। ইমেইল মার্কেটিং – ব্লগ বা বিভিন্ন মাধ্যম থেকে মানুষের ইমেইল এড্রেস এবং সম্ভব হলে মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করুন। এরপর বিভিন্ন সময়ে তাদের কাছে আমার বিজনেস ২৪ এর পণ্য বা সেবা ইমেইল, এসএমএস এর মাধ্যমে প্রোমোট করুন। ইমেইল মার্কেটিং এর জন্য Mailchimp নামের এই অসাধারণ Free Tool টি ব্যবহার করতে পারেন।

কি ধরনের কনটেন্ট পাবলিশ করবেন?

খুব জোর দিয়ে বলে রাখি- অনেক অনেক ধরনের কনটেন্ট পাবলিশ করা যায়। গুগলে একটু ঘাটাঘাটি করে অনেক আইডিয়া পেয়ে যাবেন কনটেন্ট মার্কেটিং এর। এখানে জাস্ট কয়েকটা আইডিয়া উদাহরণ হিসেবে দেখাচ্ছি-

  • ছোট ছোট দরকারি বিষয়ের উপর How-to ধরনের টিউটোরিয়াল (ভিডিও বা আর্টিকেল) বানাতে পারেন
  • বিভিন্ন বিষয়ের Review লিখতে পারেন। আমাদের পণ্য বা সেবাগুলোর রিভিউ লিখতে পারেন
  • কোনো পণ্য বা সার্ভিস, যেমন আমাদের পণ্য বা সেবা সমূহের বা প্লাটফর্ম নিয়ে নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারেন
  • আমরা বিভিন্ন পণ্য বা সেবা  অফার করে থাকি। প্রতিটি পণ্য বা সেবার সাথে সম্পর্কিত বিষয়াবলি নিয়ে কনটেন্ট বানাতে পারেন। কোন পণ্য বা সেবা কেন প্রয়োজন,  কিভাবে লাভবান হবে, পণ্য বা সেবাগুলো কাদের জন্য- এসব নিয়ে কথাবার্তা বলতে পারেন।
  • অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের সাথে আমাদের মার্কেটপ্লেসের সরাসরি তুলনা করে দেখাতে পারেন কেন আমরা ভাল
  • আমরা আমাদের মার্কেটিং এর জন্য যেসব কনটেন্ট শেয়ার করি, সেগুলো নিজেরাও পাবলিশ করতে পারেন
  • আমরা প্রায়শই বিভিন্ন ডিসকাউন্ট বা বান্ডেল অফার দিয়ে থাকি, সেগুলো প্রোমোট করতে পারেন । ইত্যাদি

আশা করি বুঝতে পারছেন- পূর্ব অভিজ্ঞতা, বড় বাজেট, খুব বেশি সময় ও শ্রম দেয়ার সুযোগ না থাকলেও ছোট পরিসরে আশেপাশের মানুষের কাছে আমাদের পণ্য বা সেবা সমূহ প্রোমোট করেও মাসে বেশ কিছু টাকা আয় করা সম্ভব। যদি ফুল-টাইম রেফারেলস মার্কেটার হওয়ার ইচ্ছা বা পরিকল্পনা নাও থাকে, তবুও সম্ভব বাড়তি কিছু উপার্জন করা! কারণ আমাদের সমাহার ডট নেট রেফারেলস প্রোগ্রামের পুরো প্রসেসটাই সহজ এবং ঝামেলামুক্ত। ব্যাংক একাউন্ট, পেপাল, মাস্টারকার্ড, পেওনিয়ার এর ঝামেলা নেই। অনেক বেশি ফ্যানবেইজ বা অডিয়েন্স থাকাও জরুরী না শুরুতেই। ব্লগ, ওয়েবসাইট না থাকলে, ইউটিউবে ভিডিও বানানোর মত সামর্থ্য না থাকলে কেবল একটা ফেইসবুক আইডি দিয়ে বা আশেপাশের মানুষের কাছে প্রোমোট করেও উপার্জন করা সম্ভব!

রেফারেলস মার্কেটিং নিয়ে কিছু কমন প্রশ্ন ও উত্তর

 রেফারেলস হতে কত খরচ হবে?

আমাদের রেফারেলস হওয়ার জন্য কোন টাকা লাগবে না; সম্পূর্ণ ফ্রি-তে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন রেফারেলস হিসেবে। এছাড়া এখানে কোন ন্যুনতম সেলস এর লিমিট নেই, যতটুক সেল করবেন ততটুকুর উপরই কমিশন পাবেন।

 আমি কত টাকা উপার্জনের আশা করতে পারি?

এটা সম্পূর্ণ আপনার উপর। আপনার উপার্জন নির্ভর করছে আপনার সুপারিশকৃত সেলস এর উপর। আমরা প্রতি সেল এর জন্য ৫-২০% পর্যন্ত কমিশন দিয়ে থাকি। যত বেশি লিংক ছড়াবেন , আর যত সেলস হবে, ততই আপনার উপার্জন বাড়বে।

 কত সময় দেয়া লাগবে এর পিছে?

এটাও সম্পূর্ণ আপনার দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার উপর নির্ভর করবে। যদি কোনো পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকে, তাহলে দিনে কমপক্ষে ১-২ ঘণ্টা সময় ব্যয় করে দেখতে পারেন। কেমন ফলাফল আসছে তার উপর ভিত্তি করে কম বা বেশি সময় দিতে পারেন।

 আমার ওয়েবসাইট বা ব্লগ কি আপনাদের রেফারেলস প্রোগ্রামের যোগ্য?

প্রায় সকম ওয়েবসাইট বা ব্লগ ই আমাদের রেফারেলস প্রোগ্রামের জন্য যোগ্য। তবে আপনার ব্লগ/পেইজ/ওয়েবসাইট/চ্যানেলে কোন ধরনের বিতর্কিত বা বেআইনি কন্টেন্ট থাকলে, আমরা মেম্বারশিপ বাতিল করে দিতে পারি।

 আমি আসলে কি শেয়ার করবো?

এটা সম্পূর্ণ আপনার উপর নির্ভরশীল। আপনি আমাদের যেকোন পণ্য বা সেবার লিংক শেয়ার করতে পারেন। কিংবা সমাহার ডট নেটের হোমপেইজের লিঙ্ক শেয়ার করতে পারেন।

 পেমেন্ট এর নিয়মকানুন গুলো কিপেমেন্ট কীভাবে দেয়া হয়?

আমরা রেফারেলসদের প্রতি মাসে ৪ বার পেমেন্ট দেই। প্রতি মাসের ৭,১৪, ২১ এবং ২৮ তারিখ। আপনার উপার্জন ৫০০০ টাকা অতিক্রম করলেই আপনি পেমেন্ট নিতে পারবেন। পেমেন্ট মেথড হিসেবে রয়েছে বিকাশ এবং রকেট

 আমি সমাহার ডট নেট রেফারেলস মার্কেটিং প্রোগ্রামে কীভাবে যোগ দিবো?

নিচের লিংকে ক্লিক করে রেজিস্ট্রেশন পেইজে যান এবং রেজিস্ট্রেশন ফর্ম টি পূরণ করে আমাদের ইমেইলের জন্য অপেক্ষা করুন। আপনার এপ্লিকেশন যাচাই করে আমরা ২-৩ দিনের মধ্যে আপনাকে ইমেইলে জানিয়ে দিব।

কোনো প্রশ্ন থাকলেবা আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে ইমেইল করুন  support@lukiye.com  এই ঠিকানায়

 

 

CLICK HERE TO REGISTER AS AN REFERRALS MARKETER

Leave a Reply